Spread the love








ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় গণধর্ষণ মামলার আসামি সজল জোমাদ্দার (২৮) নামে এক যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শনিবার দুপুর ১২টায় শৌলজালিয়া ইউনিয়নের বলতলা গ্রামের একটি মাঠ থেকে লাশটি উদ্ধার হয়।

এদিকে শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে গতকাল শুক্রবার এক গৃহবধূকে (২৫) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ এক যুবকের বিরুদ্ধে ঝিনাইগাতী থানায় মামলা করেছেন। আজ শনিবার জেলা সদর হাসপাতালে গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে অভিযুক্ত যুবক এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়নি।

নিহত সজল পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার নদমুলা গ্রামের ছেলে। তিনি ভান্ডারিয়া থানার একটি গণধর্ষণ মামলার আসামি ছিলেন। আজ দুপুরে বলতলা গ্রামের একটি বাগানের পাশের মাঠে সজলের লাশ দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। কাঁঠালিয়া থানা-পুলিশ মাথায় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাঁর লাশ উদ্ধার করে। তাঁর গলায় সুতা দিয়ে ঝোলানো একটি চিরকুটে লেখা ছিল নাম সজল। সে মাদ্রাসা ছাত্রী কারিমাকে ধর্ষণ করেছে এ কারণে তাঁর এই পরিণতি।

কাঁঠালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনামুল হক জানায়, ১২ জানুয়ারি সকাল ১১টার দিকে ভান্ডারিয়া উপজেলার এক মাদ্রাসা ছাত্রী পাশের গ্রামে নানা বাড়ি বেড়াতে রওনা হয়। তাকে পথে একা পেয়ে তুলে নিয়ে পানের বরজের ভেতর গণধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় ছাত্রীটির বাবা বাদী হয়ে ১৭ জানুয়ারি ভান্ডারিয়ার রাকিব হোসেন সজল (২৫) ও সজল জমাদ্দারকে আসামি করে ভান্ডারিয়া থানায় একটি গণধর্ষণের মামলা করেন। মামলার পর থেকেই সজল জোমাদ্দার নিখোঁজ ছিল বলে তাঁর পরিবার জানিয়েছে।

গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে গতকাল শুক্রবার এক গৃহবধূকে (২৫) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ এক যুবকের বিরুদ্ধে ঝিনাইগাতী থানায় মামলা করেছেন। আজ শনিবার জেলা সদর হাসপাতালে গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে অভিযুক্ত যুবক এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়নি।

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই গৃহবধূর স্বামী একজন শারীরিক প্রতিবন্ধী। এর সুযোগ নিয়ে প্রতিবেশী যুবক চান্দু (৩৫) মাঝে-মধ্যে ওই গৃহবধূকে উত্ত্যক্ত ও কুপ্রস্তাব দিতেন। কিন্তু প্রতিবারই তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন। গতকাল শুক্রবার দুপুরে ওই নারীকে বাড়িতে একা পেয়ে চান্দু ঘরে ঢুকে তাঁকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যান। পরে ঘটনাটি এই নারী গৃহবধূ তাঁর আত্মীয়-স্বজন ও ঝিনাইগাতী থানার পুলিশকে জানান।

ঝিনাইগাতী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আব্দুল কাদের আজ শনিবার দুপুরে প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে চান্দুর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।









Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *